Breaking News
Home / জাতীয় / ভ্যাকসিন নিয়ে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে ৬০৯ জনের

ভ্যাকসিন নিয়ে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে ৬০৯ জনের

  1. সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ভ্যাকসিন নিয়েছেন দুই লাখ ২৫ হাজার ২৮০ জন। এদের মধ্যে মাত্র ৩১ জনের সামান্য পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে যেমন: জ্বর, ভ্যাকসিন দেওয়া স্থানে লাল হাওয়া ইত্যাদি ।

আর এখন পর্যন্ত ভ্যাকসিন নিয়েছেন ২৩ লাখ ৮ হাজার ১৫৭ জন। এদের মধ্যে মোট পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা গেছে ৬০৯ জনের।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (এমআইএস) অধ্যাপক ডা. মিজানুর রহমান এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ভ্যাকসিন নিয়েছেন দুই লাখ ২৫ হাজার ২৮০ জন। এদের মধ্যে পুরুষ এক লাখ ৩৯ হাজার ৭৮০ জন ও নারী ৮৫ হাজার ৫০০ জন।

বিজ্ঞতিতে জানানো হয়, ঢাকা বিভাগে ৬৯ হাজার ৯৩৮ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ১০ হাজার ১৪ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৪৯ হাজার ২৮১ জন, রাজশাহী বিভাগে ২২ হাজার ৬৭০ জন, রংপুর বিভাগে ২০ হাজার ৩১৮ জন, খুলনা বিভাগে ৩০ হাজার ৪৬৬ জন, বরিশাল বিভাগে ১০ হাজার ৬৩১ জন ও সিলেট বিভাগে ১১ হাজার ৯৬২ জন রয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোলরুমের তথ্য অনুসারে, গত ২৭ জানুয়ারি দেশে ভ্যাকসিন দেওয়া কর্মসূচি শুরু করে। প্রথম দিন ভ্যাকসিন দেওয়া হয় ২৬ জনকে।

করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন দেওয়া কার্যক্রমের দ্বিতীয় দিনে ২৮ জানুয়ারি রাজধানীর পাঁচ হাসপাতালে মোট ৫৪১ ব্যক্তিকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়। আর ৭ ফেব্রুয়ারি সারাদেশে ভ্যাকসিন কার্যক্রম শুরু হয়। এদিনে সারাদেশে ভ্যাকসিন নেন ৩১ হাজার ১৬০ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ২৩ হাজার ৮৫৭ জন ও নারী সাত হাজার ৩০৩ জন।

এর আগে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেন, রাজধানী ঢাকায় ৫০টি হাসপাতাল ও সারাদেশে ৯৫৫টি হাসপাতালসহ মোট এক হাজার পাঁচটি হাসপাতালে ভ্যাকসিন দেওয়া কার্যক্রম চলবে। রাজধানী ঢাকায় ৫০টি হাসপাতালে ২০৪টি ও সারাদেশে ৯৫৫টি হাসপাতালে দুই হাজার ১৯৬টি টিম কাজ করবে। মোট এক হাজার পাঁচটি হাসপাতালে দুই হাজার ৪০০টি টিম কাজ করবে।

এছাড়াও ভ্যাকসিন বিষয়ক কার্যক্রমের জন্য টিম প্রস্তুত রয়েছে সাত হাজার ৩৪৪টি। আপাতত দুই হাজার ৪০০ জনকে দিয়ে মঙ্গলবারের (২৩ ফেব্রুয়ারি) কর্মসূচি শুরু হবে বলেও বিজ্ঞতিতে জানানো হয় ।

Check Also

ঢাকা চট্টগ্রাম ও সিলেট মহাসড়ক হবে স্বস্তির সড়ক – ওসি মনিরুজ্জামান

যানজট নিরসনের যাত্রীদের জন্য ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক হবে স্বস্তির সড়ক হবে বলে জানান কাঁচপুর হাইওয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *